পোস্ট (POST) এবং বীপ কোড কি?

কম্পিউটার চালু হওয়ার সময় মূলতঃ মাদারবোর্ড পাওয়ার পায় এবং এটি সরাসরি বায়োস এর ফার্মওয়্যার থেকে সফটওয়্যার চালু হয়। সবকিছু ঠিক থাকলে একটা বীপ দিয়ে বুট ডিভাইজ থেকে অপারেটিং সিস্টেম লোড করে।

পোস্ট POST

আধুনিক সব বায়োসেই বুটিং এর সময় মাদারবোর্ড এবং তার সাথে সংযুক্ত সব হার্ডওয়্যার চেক করে। এটাকে বলে Power On Self Test বা POST

বীপ কোড Beep Code

সিস্টেমের কোন সমস্যা ধরা পরলে এটি বিভিন্ন ধরনের বীপ কোড জেনারেট করে যা মাদারবোর্ডের সাথে সংযুক্ত স্পিকারে বেজে ওঠে। তা শুনে আমরা সহজেই কম্পিউটার সিস্টেমের সমস্যা নির্ণয় করতে পারি। এক এক বায়োস সিস্টেমে এক ধরনে বীপ কোড ব্যবহার করে।

বহুল পরিচিত Award বায়োসের কয়েকটি বীপ কোডঃ

১টি বড় বীপ এবং ২টি ছোট বীপঃ ভিডিও সমস্যা। বায়োস স্ক্রিনের ভিডিও ডিটেক্ট করতে পারছে না।

১টি বড় বীপ এবং ৩টি ছোট বীপঃ ভিডিও কার্ডে সমস্যা। বা ভিডিও কার্ড ডিটেক্ট করতে পারছে না।

নিয়মিত বীপ দিতে থাকাঃ র‌্যামের সমস্যা

আস্তে এবং জোরে কম্পিউটার চলাকালীন বীপ দিতে থাকাঃ কম্পিউটার বেশি গরম হওয়া।

আইবিএম, ডেল, ম্যাকিনটোস, এমি বায়োস, ফনিক্সে ভি্ন্ন বীপ কোড জেনে নিতে পারেন।

উল্যেখ্য র‌্যাম এবং ভিডিও কার্ড ঠিক থাকলে সাধারনতঃ স্ক্রিন দেখা যায়। তাই বুট ডিভাইজ না পেলে স্ক্রিনে তা লেখা আকারে দেখা যায়।

কম্পিউটার রিপেয়ার করার কাজে বীপ কোড জানা বেশ গুরুত্বপূর্ণ।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.