Recruitment Scam রিক্রুটমেন্ট স্ক্যাম

চাকরী প্রার্থীকে ভাল বেতনের চাকরীর লোভ দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নেওয়ার পদ্ধতি এটা। অনলাইনে চাকরীর বিজ্ঞাপন দেখে অনেকে আবেদন করেন এবং তাদেরকে ভূয়া অফারলেটার পাঠানো হয়।

ভিসা বা অন্য প্রসেসিং ফি বাবদ একটা টাকা ধার্য করা হয় এবং দিতে বলা হয়।

এধরনের কাজে সাধারনতঃ কোন একটি প্রতিষ্ঠানের নাম ও তাদের লগো ব্যবহার করা হয়ে থাকে। এবং প্রায় একই ধরনের ডোমেইন বা ইমেইল ঠিকানা ব্যবহার করা হয়ে থাকে। চাকরী প্রার্থী বুঝতেই পারে না যে এটা অন্য কেই পাঠিয়েছেন।

Geotagging জিওট্যাগ

কোন ছবির সাথে ভৌগলিক লোকেশন যুক্ত করাকে বলে। কোন একটি ছবির Properties দেখলে সেটা বুঝতে পারবেন।

ইদানিং বিভিন্ন ক্যামেরা ও ফোনে GPS অন করা থাকলে সয়ংক্রিয়ভাবে লোকেশনের অক্ষাংশ এবং দ্রাঘিমাংশের মান চলে আসে। আবার ছবিটি ম্যাপে আপলোড করলে সেই ম্যামের আংশে সহজেই বসে যেতে পারে।

সামাজিক নেটওয়ার্কে আপলোড করলেও সহজেই ছবিটির অবস্থান প্রকাশ পায়।

Blockchain ব্লকচেইন

ব্লকচেইন ধারাবিহকভাবে বৃদ্ধিপ্রাপ্ত রেকর্ড তালিকা যেখানে প্রতিটি ডাটা হ্যাস এ তার আগের ডাটার লিংক থাকে। ডাটাটি কখন মডিফিকেশন করা হয়েছে এবং ট্রানজেকশন ডাটাও থাকে। আর এই তথ্য এনক্রিপ্ট করা থাকে।

এই পদ্ধতিতে তথ্য সংরক্ষণে চমৎকার সব সুবিধা পাওয়া যায় তা রেকর্ডটি উম্মুক্ত করে দিলেও চাইলেই কেউ এটা পরিবর্তন করতে পারবে না।

কোন ডিস্ট্রিবিউটেড ডাটায় একাধিক জায়গা থেকে আপডেট করার ক্ষেত্রে সুবিধা দেয় ব্লক চেইন।

ব্লকচেইন নির্দিষ্ট সময় পর সবগুলো সারভারের সাথে সিনক্রোনাইজেশন করে। ব্লকচেইন টেকনোলজীর সবচেয়ে বড় সুবিধা হলো ডাটাবেজ ডিস্ট্রিবিউটেড প্লাটফর্মে রাখা যাচ্ছে এবং একই সময় ডাটা আপডেট করতে পারছে অনেকে। নির্দিষ্ট সারভারে হোস্ট না করার কারনে কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের কাছে জিম্মি থাকতে হচ্ছে না।

ব্লক চেইন ব্যবহার করে বিটকয়েন একটি উম্মুক্ত মুদ্রা আদান-প্রদান ব্যবস্থা চালু করে দিয়েছে যার মাধ্যমে ডাবল স্পেন্ডিং সমস্যার সমাধান আছে। আবার কোন প্রতিষ্ঠানের কাছে জিম্মিও থাকতে হচ্ছে না।

AWS – Amazon Web Service

আমাজন ওয়েব সার্ভিস বুঝায়।
আমাজনের বিভিন্ন সার্ভিস থাকলেও মূলতঃ আমাজনের কনটেন্ট ডেলিভারী নেটওয়ার্ক CDN ব্যবহারকে অনেকে বুঝে থাকে। এর মাধ্যমে আমাজনের সারভারে কনটেন্ট হোস্টিং করা হয় এবং ব্যবহারের উপর টাকা পে করা হয়। অনেকেই তার ওয়েবসাইটের ছবি আমাজনে হোস্ট করে।
আবার হঠাৎ অনেক ট্রফিক দরকার হয় এমন ওয়েবসাইটের জন্য আমাজনের সার্ভিস চমৎকার কাজ করে। কারন এটি বিভিন্ন সারভারে কনটেন্টগুলো ভাগ করে রাখে আর তাই অনেক বেশি ভিজিটরেও সমস্যা হয় না।

Double-Spending ডাবল স্পেন্ডিং

ডিজিটাল টাকার দুইবার ব্যবহারের ঝুকিকে ডাবল স্পেন্ডিং বলে। কাগুজে টাকা বা সোনার টাকা সহজেই দৃইবার ব্যবহার করা সম্ভব না। কারন এটা যার হাতে থাকবে তার কথা বলবে। কিন্তু ডিজিটাল টাকা ছাপানো সহজ। শুধু কপি করলেই চলবে।

আর ডিজিটাল টাকা যে আপনার এটিএম কার্ডেই থাকে তা কিন্তু না। অনেক ওয়েবসাইটেও ব্যালেন্স এড করে রাখা যায়। তারা ইতিমধ্যে Double-Spending করছে।

ডাবল স্পেন্ড যাতে না হয় তার জন্য আমাদের বিশ্বস্ত কোন প্রতিষ্ঠানের কাছে যেতে হচ্ছে। আর সেই প্রতিষ্ঠানকে চার্জও দিতে হচ্ছে। প্রতি ট্রানজেকশনে ১% খরচ হলে ১০০ ট্রানজেকশনে সম্পূর্ণ টাকার সমানই চলে যাচ্ছে এই সব প্রতিষ্ঠানের হাতে। কি ভয়ানক!

এই ডিজিটাল টাকার এই সমস্যাকে দূর করতে নতুন পদ্ধতি Bitcoin বা তার মতো অনেক সার্ভিস বাজারে চলে এসেছে।

আরো পড়ুন ব্লকচেইন

Digital Footprint ডিজিটাল ফুটপ্রিন্ট

আপনি যখন কোন একটি ওয়েব সাইটে ভিজিট করেন বা কোন একটি ইমেইল পাঠান বা আপনি হয়তো ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস লিখলেন, টুইটারে টুইট করলেন। ব্রাউজারে কোন একটি ওয়েবসাইটে ভিজিট করলেন অথবা কথা বললেন স্কাইপে।

প্রতিদিনের অনলাইন কার্যক্রমে আপনি যে ছাপ রেখে গেলেন ইন্টারনেট দুনিয়ায় তা হয়তো কখনো মুছতে পারবেন না। আপনি মুছে দিলেও তা থেকে যেতে পারে। এটাই আপনার অনরাইন দুনিয়ায় আপনার পায়ের ছাপ। ডিজিটার ছাপ তথা ডিজিটাল ফুটপ্রিন্ট (Digital Footprint)

ছবি

Negative Marketing নেগেটিভ মার্কেটিং

কোন প্রতিষ্ঠান বা পণ্যের নামে ভাল কথা বললে কম লোকই বিশ্বাস করতে চাইবে। কিন্তু খারাপ কথার বেশ কিছু আলোচনা হয় এবং বেশ প্রচার হয়।

সামাজিক নেটওয়ার্কে আলোচনা সমালোচনার ঝড় তোলার মাধ্যমে হাইলাইট হওয়ার জন্য বিতর্কিত কনটেন্ট বিজ্ঞাপন বা পন্য নিয়ে সমালোচিত হওয়ার মাধ্যমে প্রচারকে নেগেটিভ মার্কেটিং বলে।

কোন একটি ভিডিওকে খারাপ বললে অনেক অনেক লোক সেই ভিডিওটি দেখার জন্য হুমরী খেয়ে পরে ফলে ভিউ বাড়ায় ভিডিও তৈরীকারী বেশ লাভবান হয়। এমন রেবেকা ব্লাকের ফ্রাইডে ভিডিওটিতে অনেক বেশি আনলাইক পড়ায় অনেক বেশি সমালোচিত হওয়ায় ভিউ অনেক বেড়েছে।

অনেকে বিতর্কিত বিজ্ঞাপন তৈরী করেও প্রচারে চলে আসে। অবশ্য সব ধরনের পণ্য ও সেবার জন্য নেগেটিভ মার্কেটিং উপযুক্ত না।