নতুন উইন্ডোজ ৮ এর সাথে থাকছে বেশ কিছু প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার

‘উইন্ডোজ ৮’ নামটি হলো মাইক্রোসফট উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম এর পরবর্তি সংস্করণ, যা উইন্ডোজ ৭ কে অনুসরণ করা হয়েছে।[৩] এই সংস্করণে পূর্ববর্তী সংস্করণ গুলো থেকে অনেক পরিবর্তন আনা হয়েছে । বিষেশত এটাতে পূর্বের ইন্টেল ও এএমডি এর x৮৬ মাইক্রো প্রসেসর সাপোর্ট ছাড়াও এআরএম মাইক্রো প্রসেসর সাপোর্ট যোগ করা হয়েছে। এতে টাচ ক্রিন ইনপুট এর জন্য ডিজাইনকৃত নতুন একটি ষ্টার্ট ক্রিন যোগ করা হয়েছে ; তাছাড়াও মাউস, কিবোর্ড ও পেন ড্রাইভ ইনপুট যোগ করা হয়েছে । এটি প্রকাশ করা হয় ২৬ অক্টোবর, ২০১৩ তারিখে । নতুন উইন্ডোজ ৮ এ বেশ কিছু প্রয়োজনীয় সফটওয়্যার সমন্বয় করা হয়েছে যা উইন্ডোজ ৮ ইন্সটল দেওয়ার পর আবার সফটওয়্যারগুলো ইন্সটল করতে হবে না ।

অ্যান্টিভাইরাসঃ এখন নতুন উইন্ডোজ ৮ ইন্সটল করলে আপনাকে আর এন্টিভাইরাস ইন্সটল করতে হবে না । কেননা, নতুন উইন্ডোজ ৮ ইন্সটল করলে ডিফল্টভাবে ‘উইন্ডোজ ডিফেন্ডার’ নামক বিশেষ অ্যান্টিভাইরাস ইন্সটল করা থাকবে ।

সিকিউরিটি স্যুটঃ নতুন উইন্ডোজ ৮ এ অ্যান্টিভাইরাস এর সাথে সিকিউরিটি স্যুট (Security Suite) সেওয়া থাকবে যার মাধ্যমে আপনার পিসি থাকবে পরিপূর্ণ সুরক্ষিত । এই টুলটি সিকিউরিটির জন্য যথেষ্ট ভুমিকা পালন করবে ।

পিসি ক্লিনারঃ কম্পিউটার এর জাঙ্ক(অপ্রয়োজনীয়) ফাইলগুলো মুছে এ ধরনের টুল ব্যবহার করা হয় । এসব ফাইল মুছে ফেলার কারণে মূলত পিসি কিছুটা দ্রুত কাজ করে ।

পার্টিশন ম্যানেজারঃ এই সফটওয়্যারটি বেশ জনপ্রিয় এবং প্রয়োজনীয় । এই সফটওয়্যারের মাধ্যমে আপনি খুব সহজেই আপনার কম্পিউটার ডিস্ক এর পার্টিশন ম্যানেজমেন্ট করতে পারবেন । নতুন উইন্ডোজ ৮ ইন্সটল দেওয়ার পর এখন থেকে আর আপনাকে এই সফটওয়্যার ইন্সটল করতে হবে । এটা ডিফল্টভাবেই ইন্সটল করা থাকবে ।

এছাড়া, নতুন উইন্ডোজ ৮ পাচ্ছেন ফায়ারওয়াল, ডিস্ক বার্নিং টুল, নেট ফার্মওয়ার্ক, নতুন মিডিয়া প্লেয়ারসহ আরও অনেক কিছু ।

ধন্যবাদ সবাইকে পোস্টটি পড়ার জন্য ।


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য লিখুন

Leave a Reply