অ্যান্ড্রয়েড Development টিউটোরিয়াল পর্ব ১

অ্যান্ড্রয়েড Development টিউটোরিয়াল পর্ব ১
p
fast publish in tutorialbd.
অ্যান্ড্রয়েড Development টিউটোরিয়াল পর্ব ১
অ্যান্ড্রয়েড কি?
এনড্রয়েড (ইংরেজি: Android) হল মোবাইলের জন্য কিছু সফটওয়্যারের সম্মিলন যেটাতে অপারেটিং সিস্টেম, মিডলওয়্যার এবং এপ্লিকেশনগুলো থাকে। গুগল ইনকর্পোরেটের প্রাথমিক ডেভেলপারদের (এনড্রয়েড ইনকর্পোরেট) কিনে নেয় ২০০৫ সালে। এনড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম লিনাক্স কারনেলের উপর ভিত্তি করে তৈরী করা হয়েছে। গুগল এবং অন্যান্য মুক্ত হ্যান্ডসেট এল্যায়েন্সের সদস্যরা এন্ড্রয়েডের উন্নয়ন এবং বাজারে উন্মুক্ত করা নিয়ন্ত্রন করে। এনড্রয়েড ওপেন সোর্স প্রজেক্ট’টি (এওএসপি) এন্ড্রয়েডের রক্ষনাবেক্ষন এবং ভবিষ্য উন্নয়নের কাজ করে থাকে। এনড্রয়েড হল বিশ্বের শীর্ষ বিক্রিত স্মার্টফোন অপারেটিং সিস্টেম।
এন্ড্রয়েডের অনেক উন্নয়নকারী আছে যারা এর জন্য বিভিন্ন এপ্লিকশন তৈরী করে থাকে এতে করে এই অপারেটিং সিস্টেমের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পেয়েছে। এখন প্রায় ২০০,০০০ সংখ্যক এপ্লিকশনের উপরে বাজারে এন্ড্রয়েডের এপ্লিকেশন রয়েছে। এনড্রয়েড মার্কেট একটি এপ্লিকশন বাজার যেটা গুগল চালায়, যদিও এপ্লিকেশনগুলো বাইরের কোন থার্ড পার্টি সাইট থেকে ডাউনলোড করা যায়। উন্নয়নকারীরা প্রাথমিকভাবে জাভা প্রোগ্রামিং ভাষা দিয়ে লিখে থাকে, যেটা গুগল জাভা লাইব্রেরি দ্বারা নিয়ন্ত্রন করা হয়।
ওপেন হ্যান্ডসেট এল্যায়েন্সের শুরু সাথে সাথে এন্ড্রয়েডের বিতরন উন্মুক্ত করা হয় ৫ই নভেম্বর ২০০৭ সালে যেখানে ৮০টি হার্ডওয়্যার, সফটওয়্যার এবং টেলিকম কোম্পানী ছিল। তাদের সকলের উদ্দেশ্য ছিল মুক্ত আদর্শ মোবাইল প্লাটফর্ম তৈরী করা। গুগল এন্ড্রয়েডের বেশিরভাগ কোড ছাড়ে এপ্যাচি এবং মুক্ত উৎসের লাইসেন্সের আওতায়।
এন্ড্রয়েডের সফটওয়্যারটি জাভা এপ্লিকেশনের সমন্বয়ে গঠিত যা জাভার উপর ভিত্তি করে তৈরী করা, এটি ডেলভিক ভার্চুয়াল মেশিনে (জেআইটি কম্পাইলেশন ব্যবহার করে) জাভা কোর লাইব্রেরীতে চলে। লাইব্রেরীটি প্রোগ্রামিং ভাষা সি’তে লিখা যাতে আছে সারফেস ম্যানেজার, ওপেন কোর মিডিয়া ফ্রেমওর্য়াক, এসকিউলিট রিলেশনাল ডাটাবেজ ম্যানেজমেন্ট সিস্টেম, ওপেনজিএল ইএস ২.০ ৩য় মাত্রার গ্রাফিক্স এপিআই, ওয়েবকিট লেআউট ইন্জিন, এসজিএল গ্রাফিক্স ইন্জিন, এসএসএল এবং বাইওনিক লিবক। এনড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমটি (যাতে লিনাক্স কারনেলও আছে) প্রায় ১২ মিলিয়ন কোডিং লাইনের সমন্বয়ে তৈরী যাতে আছে প্রায় ৩ মিলিয়ন এক্সএমএল লাইন, প্রায় ২.৮ মিলিয়ন সি (প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ) লাইন, ২.১ মিলিয়ন জাভা লাইন, ১.৭৫ মিলিয়ন সি++ (প্রোগ্রামিং ল্যাঙ্গুয়েজ) লাইন।
শর্তঃ আপনার যদি জাভা প্রোগ্রামিং উপর মৌলিক জ্ঞান থাকে, তাহলে এটি Android এর এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট শিখতে একটি মজা হবে। তাই অ্যান্ড্রয়েড প্রোগ্রামিং জাভা প্রোগ্রামিং ভাষার উপর ভিত্তি করে।
অ্যান্ড্রয়েড যেমন স্মার্টফোনের এবং ট্যাবলেট কম্পিউটার হিসাবে মোবাইল ডিভাইসের জন্য একটি ওপেন সোর্স এবং লিনাক্স ভিত্তিক অপারেটিং সিস্টেম. অ্যান্ড্রয়েড ওপেন হ্যান্ডসেট গুগল নেতৃত্বে জোট, এবং অন্যান্য কোম্পানি দ্বারা উন্নত ছিল।
অ্যানড্রইড ডেভেলপারদের শুধুমাত্র Android এর জন্য বিকাশ প্রয়োজন, যার মানে মোবাইল ডিভাইসের জন্য এপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট একটি ইউনিফাইড পদ্ধতির প্রস্তাব, এবং তাদের বিভিন্ন অ্যাপ্লিকেশনের Android এর দ্বারা চালিত বিভিন্ন ডিভাইস চালানো করতে সক্ষম হওয়া উচিত।
প্রথম বাণিজ্যিক সংস্করণের অ্যান্ড্রয়েড 1.0 হিসাবে, সেপ্টেম্বর 2008 সালে মুক্তি পায় যেখানে অ্যান্ড্রয়েড সফটওয়্যার ডেভেলপমেন্ট কিট (SDK এর) প্রথম বিটা সংস্করণ 2007 সালে Google দ্বারা প্রকাশ করা হয়।
অ্যান্ড্রয়েড টিউটোরিয়াল
জুন 27, 2012, গুগল, I / O সম্মেলনে, গুগল পরের অ্যানড্রইড সংস্করণ, 4.1 জেলি সিম ঘোষণা. জেলি সিম ইউজার ইন্টারফেস উন্নতি প্রাথমিক উদ্দেশ্য নিয়ে, উভয় কার্যকারিতা এবং কার্যকারিতা পদ, একটি ক্রমবর্দ্ধমান আপডেট হয়।
Android এর জন্য সোর্স কোড মুক্ত ও ওপেন সোর্স সফটওয়্যার লাইসেন্সের আওতায় পাওয়া যায়. গুগল গনু জেনারেল পাবলিক লাইসেন্সের সংস্করণ 2 অধীনে, Apache লাইসেন্স সংস্করণ 2.0 এবং বাকি, লিনাক্স কার্নেল পরিবর্তন অধীনে কোড অধিকাংশ প্রকাশ করে।

find me on fb www.fb.com/avro.abir.79


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য লিখুন

Leave a Reply