চা না কফি খাবেন তা ডিএনএ ঠিক করে রেখেছে

মেহমানকে জিজ্ঞাস করি চা না কফি খাবেন? মেহমান হয়তো উত্তর দিলো কফি খবো। কেন সে কফি খেতে চায় আর অন্যজন খেতে চায় চা?

মানুষের এক ধরনের জীন এ জন্য দায়ী। এই জীন নির্ধারণ করে মানুষ কতটুকু পরিমান তিক্ত স্বাদ পছন্দ করে।

অনেক আগে থেকে মনে করা হতো তিক্ত স্বাদ মানুষ অপছন্দ করে কারণ তিতো জিনিসই বিষাক্ত।

গবেষকরা ডিএনএ পরীক্ষা করে জানতে পেরেছে- মানুষের তিক্ত স্বাদের জন্য নির্দিষ্ট অংশ কাজ করে। এমনও হতে পারে কারো কাছে এটি যত বেশি তিতো মনে হচ্ছে আরেকজনের কাছে সেটি কম তিতো মনে হচ্ছে। এ জন্য তারা এক এক জনের এক একটি জেনেটিক স্কোর নির্ধারণ করেছেন। যার জেনেটিক স্কোর বেশি সে গাঢ় কফি খেতে পছন্দ করবে। যার স্কোর একেবারে কম সে কফিই খেতে চাইবে না।

অস্ট্রেলিয়া, আমেরিকা এবং ইংল্যান্ডের গবেষকরা প্রায় ৪ লাখ অংশ পেয়েছে যা একজন মানুষের খাবার ও চলাফেরা ও লাইফস্টাইলের অনেক কিছুই নিয়ন্ত্রণ করে।

মাহবুব টিউটো

তিনি টিউটোরিয়ালবিডিসহ বেশ কিছু সফল অনলাইন প্রোজেক্টের উদ্যোক্তা ও পরিচালক। তিনি বর্তমানে একটি গ্রুপ প্রতিষ্ঠানে তথ্যপ্রযুক্তিতে কর্মরত আছেন। তার জন্ম, পড়ালেখা এবং আবাস্থল ঢাকায়। ফেসবুকে আর সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। তার ইউটিউব চ্যানেলে ঘুরে আসতে পারেন। 

Tags:


ফেসবুকের মাধ্যমে মন্তব্য লিখুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Time limit is exhausted. Please reload CAPTCHA.