ড্রাইভসেফ.লি মেসেজ পড়ে শোনাবে ও জবাব দেবে

আমাদের মধ্যে এমন অনেকেই আছেন যারা পথে ঘাটে যেখানেই থাকুন তাদের মোবাইল ফোনটিকে কান থেকে সরাতে পারেন না। ইদানীং এ প্রবণতা আমাদের মধ্যে খুবই বাড়ছে। পথে ঘাটে হাঁটতে গেলেও দেখা যায় প্রায় প্রতিটি পথচারীই কানে হাত দিয়ে, মানে মোবাইল ফোনে আলাপাচারিতায় ব্যস্ত আছেন।

এটা না হয় মেনে নেয়া যায়, কিন্তু গাড়ি চালাতে গিয়েও যখন কান থেকে মোবাইল ফোনটি সরে না তখন তা খুবই চিন্তার বিষয় হয়ে দাঁড়ায়। কারণ গাড়ি চালাতে গিয়ে এক হাত দিয়ে কানে মোবাইল ফোন ধরে রাখলে পথ দুর্ঘটনার আশঙ্কা যে অনেকটাই বেড়ে যায়, বিশেষ করে ঢাকার এই নিয়মনীতিহীন রাস্তায়! তা একটি বাচ্চা ছেলেও বুঝবে।

তবুও কানে মোবাইল ফোন চেপে গাড়ি চালানো প্রচুর মানুষ আমাদের চোখে পড়ে। এ ধরনের মানুষসহ চলার পথেও মোবাইল ফোনের কথা ভুলতে না পারা সবার জন্য আছে ছোট বড় হেড ফোন, যেগুলো কানে দিয়ে রাখলে এক হাতে মোবাইল ফোন না ধরেই কথা বলা যায়।

কিন্তু মেসেজ পাঠানো ও গ্রহণ করা? চলমান অবস্থায় এ কাজটি করার জন্য দারুণ একটি সফটওয়্যার এখন পাওয়া যাচ্ছে, যার নাম  ড্রাইভসেফ.লি। এর কাজ হচ্ছে আপনার চলার পথে টেক্সট মেসেজ (SMS) নিয়ে যাবতীয় ঝক্কি সামলানো। এই ছোট মোবাইল অ্যাপ্লিকেশনটি আপনার কাছে আসা ইনকামিং মেসেজগুলো পড়ে শোনাবে, যাতে মেসেজ পড়ার জন্য আপনাকে স্টিয়ারিং হুইল থেকে হাত এবং রাস্তা থেকে চোখ সরাতে না হয়।

এছাড়াও, এ সফটওয়্যার আপনার কাছে আসা মেসেজগুলোর জবাব অটোম্যাটিক ভাবেই দিয়ে দেবে যাতে মেসেজ সেন্ডার জানতে পারবেন যে আপনি এখন গাড়ি চালাচ্ছেন এবং গন্তব্যে পৌঁছামাত্রই তার মেসেজের উত্তর দেবেন।

drivesafely-screenshot

এ মুহূর্তে অবশ্য আমার আপনার সাধারণ ফোনগুলোতে এ অ্যাপ্লিকেশনটি ব্যবহার করা যাবে না। কেবল ব্ল্যাকবেরি স্মার্ট ফোন এবং যেসব মোবাইল ফোনে গুগলের এন্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা হচ্ছে সেগুলোতেই এটি চালানো যাবে। তবে খুব শীঘ্রই IPhone ও Windows Mobile-এর জন্যও এটিকে পাওয়া যাবে।

এ অ্যাপ্লিকেশনটি দিয়ে কেবল টেক্সট মেসেজ পড়া বা উত্তর দেয়াই নয়, আপনার ই-মেইলও পড়া যাবে; আর তাও আপনার ইনবক্সে ই-মেইল আসার সঙ্গে সঙ্গেই! এমনকি BRB (Be Right Back) বা LOL (Laughing Out Loud) –এর মত অ্যাব্রিভিয়েশনগুলোরও মানে বুঝতে পারে এ অ্যাপ্লিকেশনটি।

আপনার মোবাইলে এটি ইন্সটল করার পর গাড়ি চালানোর সময় স্রেফ মোবাইল ফোনটি পাশে রাখলেই চলবে। মেইল বা টেক্সট মেসেজ যেটাই আসুক, এটি জোরে জোরে আপনাকে পড়ে শোনাবে এবং মেসেজের অটো আনসার দেবে। আপনার ফোন যদি ব্লুটুথ সাপোর্টেড হয় তাহলে ইচ্ছে করলে মোবাইল ফোনের লো স্পিকারে না শুনে গাড়ির স্পিকারেও জোরে জোরে মেসেজ শুনতে পারবেন।