বেসিক- নেটওয়ার্কিং কি? কম্পিউটার নেটওয়ার্ক-১

একটা কম্পিউটার আরেকটা কম্পিটারের সাথে যোগাযোগ করা এবং তথ্য বিনিময় করাকে কম্পিটার নেটওয়াকিং বলে।
এই একটি কম্পিউটার PC1 আরেকটি কম্পউটার PC2 আরেকটি PC3 যদি নিজেদের মধ্যে ডাটা আদান প্রদান করতে পারে তাহলে তাদেরকে আমরা নেটওয়ার্কে যুক্ত আছে বলি।

ধারাবাহিক ভাবে কম্পিউটার নেটওয়ার্কের পোষ্ট ও ভিডিও প্রকাশ করা হবে। আশা করি নিয়মিত থাকবেন। আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করতে পারেন।

নেটওয়ার্ক কম্পিউটার-কম্পিউটার-ই হতে হবে তা কিন্তু না। কম্পিউটারের সাথে অন্য কম্পিউটারও হতে পারে, মোবাইল ফোন হতে পারে, ট্যাব বা নেটওয়ার্ক প্রিন্টারও হতে পারে। এখন তো আরো অনেক ডিভাইসই কম্পিউটার যদিও আমরা মনে করি কম্পিটার না। যেমন- ডিভিআর, এনভিএর (বা নেটওয়ার্ক ভিডিও রেকর্ডার), আইপি ক্যামেরা, আইপি ফোন, বায়োমেট্রিক রিডার ইত্যাদি।

এই সব নেটওয়ার্ক আবার ভিন্ন ভিন্নভাবে যুক্ত থাকে। যেমন- ফাইবার অপটিক ক্যাবলের মাধ্যমে, বা RJ 45 ক্যাবলের মাধ্যমে বা ওয়াইফাই, 3G, GPRS ইত্যাদি টেকনোলজির মাধ্যমে ।

ডাটা আদান প্রদান বলতে ডজিটাল ডাটা্ সেটা হতে পারে কোন ডকুমেন্ট বা অডিও, ভিডিও ফাইল বা সফটওয়্যার। হতে পারে স্ট্রিমিং ভিডিও যেমন-ইউটিউব ভিডিও বা ফয়েজ।
আপনি যদি কখনো কোন কম্পি্টারের সাথে তথ্য বিনিময় না করতে পারেন তখনো নেটওয়ার্কের আওতায় থাকা হতে পারে। নেটওয়ার্কের আওতায় থাকা অবস্থায় আপনি নির্দিষ্ট কিছু সুবিধা গ্রহণ করার জন্য অনুমোদিত হতে পারেন।
যেমন- কোন কম্পিউটার অন্য কোন কম্পিউটারের ফাইল দেখতে পারবে কিন্তু পরিবর্তন করতে পারবে না।

ডাটা আদান প্রদান বলতে ডজিটাল ডাটা্ সেটা হতে পারে কোন ডকুমেন্ট বা অডিও, ভিডিও ফাইল বা সফটওয়্যার। হতে পারে স্ট্রিমিং ভিডিও যেমন-ইউটিউব ভিডিও বা ফয়েজ।
আপনি যদি কখনো কোন কম্পি্টারের সাথে তথ্য বিনিময় না করতে পারেন তখনো নেটওয়ার্কের আওতায় থাকা হতে পারে। নেটওয়ার্কের আওতায় থাকা অবস্থায় আপনি নির্দিষ্ট কিছু সুবিধা গ্রহণ করার জন্য অনুমোদিত হতে পারেন।
যেমন- কোন কম্পিউটার অন্য কোন কম্পিউটারের ফাইল দেখতে পারবে কিন্তু পরিবর্তন করতে পারবে না।