নিজের জন্য কিভাবে লেখি

লেখালেখিটা আমার প্যাশন। প্যাশন শব্দের বাংলা কি সখ হবে কিনা জানি না তবে সখ কথাটা একটু হালকা আর অস্থায়ী মনে হয় বলে ইংরেজীতেই বললাম।

অনেকে তো গেম খেলার জন্য লাখ টাকার গেমিং পিসি কিনে। ছবি তোলার জন্য ডিএসএল আর। ক্রিয়েটিভ এক একটা ছবির দাম কি টাকা দিয়ে দেওয়া যাবে? হয়তো ফেসবুকে কিছু লাইক মিটবে। প্যাশনেরও বয়স আছে- হয়তো সখের চেয়ে কিছু বেশি বয়স পাবে। প্যাশনের মৃত্যু হবে- প্যাশন বাচবে না- মটিভেশনের অভাবে মারা যাবে। প্যাশন কি মটিভেশনের ধার ধারে? বাবা মায়ের বক খেয়ে কি বাচ্চারা বাইরে খেলাধুলা করে না? করে তো।

পরের পোস্ট ই-মেইলে পেতে সাবস্ক্ইব করুন।:

ই-মেইলের লিংকে ক্লিক করে একটিভেট করে নিন। FeedBurner

নিজের জন্য আমি কিভাবে লেখি তা বলা মুসকিল। তবে আমি নিজের লেখার পাঠক – এজন্য ১০ বছরে ব্লগের পেছনে অনেক টাকা খরচ করেছি, অনেক ভিজিটর পেয়েছি- আবার কমতে কমতে অনেক কম ভিজিটরও পাচ্ছি। তাহলে এখন কিভাবে আবার লেখতে পারি? আগের লেখার চেয়ে এখন ঢের খারাপ লেখার হাত তারপরেও কেন লেখি। এই লেখা কেউ দেখে না তবুও কেন লেখি? হাজার গুন ভাল ক্রিয়েটিভ ভিডিও আছে এই বিষয়ে তারপরেও লেখি? কেন? কেন?

যারা ইতিমধ্যে লেখা ছেড়ে দিছে তারা অনেক বড় পদে গিয়ে বুঝে ফেলেছে-আসলে এটা আর দরকার নাই। এগুলার চাহিদা শেষ হইয়া গেছে। বাংলা ব্লগ লেখে কেউ টাকা কামাতে পারবে না -এটা জানা কথা, বরং সাইটের খরচ চালাতে হবে পকেট থেকে। এই সব ডিমটিভেশনের সমুদ্রে বাংলা অক্ষর টাইপ করে কি লাভ?

আমি যা শিখি তা লিখিঃ

রলিংসের কথাটা মরে পড়লো, ইন্টারের ইংরেজীতে মাদার ইন ম্যানভিলে পড়ছিলাম, The human mind scatters its interests as though made of thistledown. মানুষের মন আগ্রহ মরে যায়। আমার শেখার বিষয় এক এক সময় এক একটা হয়। আমি যা তা শিখি আর যা তা লেখি। লেখাটা আমার পড়ার রিভিশন। পড়াটা আরো ভালো করতে আমি লেখি, লেখতে গেলে অনেক শব্দের অর্থ বুঝিয়ে দিতে হয় বাংলায়- তাই করি। এটা আমার নিজের জন্য লাভজনক, ভিজিটররা আসে-পড়ে আর হাসে- এই লোক কি সব কাজ কর্ম করে বেড়ায়। লেখার কোন সাইজ নাই, ধরন নাই, নিচি নাই- কখনো বা লিনাক্স বিষয়ে লেখলো কখনো বা দর্শন টাইপের, কখনো বা রাজনীতি কখনো বা ধর্ম বা সমাজ।

আমি আমার পুরানো লেখা পড়ে মজা পাই

আমি আগে অনেক ভাল লেখতাম। এখন বাজে হয়ে গেছে-হোক-আমি আমার বাজে লেখাই লেখি। কোন ক্যাটাগরিতে পরে তা আমি ভাল বোঝতে যাই না। কখনো ৫০ পর্বের কোন ট্যাকনিক্যাল লেখা লেখতি গিয়ে ঠেকে যাই

এটা আমার সংগ্রহশালা, জাদুঘর, এখানে আমার বিচরণ

নিজের জিনিসকে সবাই বেশি মূল্যায়ন করে। এটা একটা নিরাপত্তা ব্যবস্থা। নিজের আইডিয়াকে বেশি প্রাধান্য দেওয়ার কারনেই মানুষ লেগে থাকে, লেগে থেকে বাস্তবায়ন করে-অন্যের আইডিয়াতে মানুষ এতটা লেগে থাকতো না। এমনিভাবে আমি মনে করি আমার লেখা মূল্যবান আর তাই অনেক কাজের ভিড়েও লিখে যাই, লিখে যেতে পারি।

আমি সাধারণ, আমার সাদাসিধে লেখার মতোই সাধারণ। অসাধারণ লেখা বা ভাল হচ্ছে না কনটেন্ট বা ভাল ভিউ হচ্ছে না তা আমাতে ডিমোটিভেট করতে না পারে এজন সচেতন আমি।

তাহলে অন্য জায়গায় তেমন লেখি না কেন? টাকার জন্য না লেখলে এডসেন্স কেন বসাইছেন? সাবস্ক্রিপশন চার্জ চাওয়ার উদ্যেশ্য কি? এটা সারভাইভের জন্য।

যাতে আরো লোক যাদের কাজের চাপে লেখা বন্ধ হয়ে গেছে তাদের যাতে প্রফেশন হিসেবে লেখাটা দিতে পারি। এই প্রচেষ্টা চলছে, অনেক ভাল লেখক আছে যারা রুটি রোজগারের জন্য লিখতে পারছে না, অন্য কাজ করছে।

টিউটোরিয়ালবিডি সেই প্লাটফর্ম তৈরী করেছে যাতে ধীরে ধীরে আরো লেখক চলে আসে, লেখাটাই কাজ হয়। কনটেন্ট তৈরীই তার কাজ হোক। আপনি সদস্য হয়ে এই অগ্রগামী প্রজেক্টের প্রথম অনুপ্রেরণা হতে পারেন। টিউটোরিয়ালবিডি প্রথম দিকের সদস্যদের মনে রাখবে। বড় কিছু হলে প্রথম দিকের সদস্যদের যারা অনুপ্রেরণা জুগিয়েছে তাদের সম্মান দেয়ার চেষ্টা করবো।