মটরসাইকেলের ইতিহাস

মটর সাইকেলের জন্ম মূলতঃ বাই সাইকেল থেকে। ফ্রন্সের আবিষ্কারক পিয়েরে মিকাক্স সর্ব প্রথম বাইসাইকেলটির ডিজাইন তৈরী করেন। পিয়েরে ১৮১৩ সালে জন্মগ্রহণ করেন এবং ১৮৬০ সালে তার প্রটোকোল সাইকেলটি চলার উপযোগি করে ডিজাইন করা হয়।

দেখতেই পাচ্ছেন এটি ছিল পেডেল বাইসাইকেল যার সামনের চাকাটিতে পেডেল দিয়ে চালাতে হয়। এটির নাম ছিল Pierre Lallement

দ্রত হেটে চলার জন্য Dandy Horse ১৮৬২ সালে আবিস্কার হয়। এটির মাধ্যমে মানুষ দ্রুত গতিতে হেটে চলতে পারতো। অবশ্য এটি তেমন জনপ্রিয়তা পায় নাই।

এর মধ্যেই বাষ্পিয় ইঞ্জিন চালু হয়। 

পিয়েরে মিকাক্সের ছেলে তাদের গ্যারেজে বাই সাইকেলের সাথে বাষ্পিয় ইঞ্জিন যোগ করে। 

১৮৮৫ সালে জার্মানে  Gottlieb Daimler এবং Wilhelm Maybach পেট্রোল চালিত মটরসাইকেল আবিষ্কার করেন।

আমাদের এই অতি প্ররিচিত মটরছাইকেল ১৯ শতকের ২য় বছরে ইঊরুপে আবিস্কৃত হয়েছে । এটি বাইছাইকেল এর ডিজাইন কে আনুসরন করে বানান হয়েছে যার ভিতর তারা প্যাডেল এর স্থানে একটি মটর বসিয়ে ইঙ্গিন চলিত গাড়ির নেয় তৈরি করেছে । তবে আবিস্কারের সময় ইঊরপের অনেক বিঙ্গরা এর যন্ত্রাংশ নিয়ে গবেসনা করে এটিকে সম্পূর্ণ ভাবে রূপান্তরিত করেন । ১৮৬০ এর দশকে পিয়েরা মাইচাক্স প্যারিসের একটি কামার প্যাডেলগুলির সাথে সাইকেল তৈরি করার জন্য প্রথম সংস্থাটি তখন ভেলোসিপিড বা “মাইচুলিন” নামে পরিচিত হয় । এই পিয়েরের ছেলে আর্নেস্ট মাইচাক্স একটি ‘স্টোরিচিডে’ একটিতে একটি ছোট স্টিম ইঞ্জিন লাগিয়েছিলেন।

আমেরিকাতে এই নকশাটি তখন পিয়ের লালমেন্ট নামে একজন মাইচাক্স কর্মচারী যখন ১৮৬৩ সালে’ মার্কিন পেটেন্ট অফিসে ‘প্রথম সাইকেল পেটেন্টের জন্য আবেদন করেছিলেন । তিনি ১৮৬৬ সালে প্রোটোটাইপ তৈরির দাবি করেছিলেন। ১৮৬৮ সালে আমেরিকান, ম্যাসাচুসেটস রক্সবারি এর সিলভেস্টার এইচ রোপার একটি চতুষ্পদ সিলিন্ডার স্টিম ভেলোসিপিড তৈরি করেছিলেন, যার সাথে চাকাগুলির মধ্যে একটি কয়লা চালিত বয়লার ছিল। মোটরসাইকেলের বিকাশে রোপারের অবদান হঠাৎ করেই শেষ হয়েছিল যখন তিনি ম্যাসাচুসেটস এর ক্যামব্রিজে তার একটি মেশিন প্রদর্শন করে মারা গিয়েছিলেন।

তবে একটি ফরাসি ইঞ্জিনিয়ার লুই-গুইলিউম পেরিয়াক্স একটি অ্যালকোহল বার্নার এবং দ্বৈত বেল্ট ড্রাইভ সহ মাইকাক্স-পেরেরাক্স স্টিম ভেলোসিপিডের সাথে একই জাতীয় স্টিম চালিত একক সিলিন্ডার মেশিনকে পেটেন্ট করেছিলেন, সম্ভবত এটি রোপারের স্বাধীনভাবে আবিষ্কার করা হয়েছিল। পেটেন্টটি ১৮৬৮ সালে, কিন্তু আবিষ্কারটি ১৮৭১ সালের পর সম্পূর্ণরূপে কার্যকর হয় ।


তবে জানা যায় ১৮৮৭ সালে কোপল্যান্ড প্রথম সফলভাবে ‘মোটো-সাইকেল’ তৈরি করতে এর কারখানা দেয় । ইঙ্গিন চলিত বাইসাইকেলের প্রথম বাণিজ্যিক নকশা ছিল থ্রি-হুইল ডিজাইন যা বাটলার পেট্রোল সাইকেল নামে অভিহিত হয়েছিল এবং তা ১৮৮৪ সালে ইংল্যান্ডে এডওয়ার্ড বাটলার তৈরি করেছিলেন। তিনি ১৮৮৪ সালে লন্ডনের স্ট্যানলি সাইকেল শো-তে গাড়ীর জন্য তার পরিকল্পনাগুলি প্রদর্শন করেছিলেন, কার্ল বেনজ তার প্রথম অটোমোবাইল আবিষ্কার করেছিলেন, যিনি সাধারণত আধুনিক গাড়িটির আবিষ্কারক হিসাবে স্বীকৃত। লন্ডনে ১৮৮৫ আন্তর্জাতিক উদ্ভাবনী প্রদর্শনীতে বাটলারের গাড়িটিও প্রথম ডিজাইন হিসাবে প্রদর্শিত হয়েছিল।

১৮৮৮ সালে গ্রিনউইচে মেরিওয়েদার ফায়ার ইঞ্জিন সংস্থা এই গাড়িটি তৈরি করে ।বাটলার পেট্রোল একটি তিন চাকার যান ছিল এবং আকারম্যান স্টিয়ারিং,এগুলির সমস্তই তখনকার শিল্প ছিল। শুরুটি সংকুচিত বায়ু দ্বারা হয়েছিল । ইঞ্জিনটি তরল-শীতল হয়েছিল, এর পিছনের ড্রাইভিং হুইলের উপরে একটি রেডিয়েটার ছিল। গতি একটি থ্রটল ভালভ লিভারের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছিল। কোনও ব্রেকিং সিস্টেম লাগানো হয়নি; একটি গাড়ী চালিত লিভার ব্যবহার করে পিছন ড্রাইভিং হুইলটি বাড়িয়ে এবং নীচে নামিয়ে দিয়ে গাড়ি থামানো হয়েছিল; মেশিনটির ওজন তখন দুটি ছোট ক্যাস্টর চাকা বহন করে । এটি আবিস্কারে কোন আর্থিক লোকসানে পরতে হয়নি বলে এটিকে সফল বানিঙ্গিক ঊদ্দক বলে মননায়ন করা হয় ।