থিসিস থিম এর হেডার কাস্টমাইজড ১ (লোগো লাগানো ও পাশে ব্যানার স্থাপন)

ওয়ার্ডপ্রেস (wordpress.org) এ যারা বেশ কিছু দিন ধরে ব্লগিং করছেন তাদের সবার মোটামুটি Thesis থিম এর সাথে পরিচিত হবার কথা এটা বর্তমানে সবচেয়ে জনপ্রিয় থিম। আমার দেখায় বিশ্বের সব বড় বড় ব্লগরাই Thesis থিম ব্যাবহার করেন। আমাদের জিন্নাত উল হাসান ভাইও Thesis থিম ব্যাবহার করেন। আমিও Thesis এর বড় ভক্ত। কিন্তু দুঃখের কথা এটা ফ্রি নয়।

আর দাম! আর বলা লাগবে না। একেবারে আকাশ চুম্বী। ডেপলপার ভার্শন $164 আর পারসোনাল ভার্শন $87। তবে বর্তমানের পাইরেছির যুগে এটা কোন বাঁধা নয়। Thesis টার এত দাম হবার করণ বোধয় এটাতে কোড খুব একটা জানতে হয় না। অর্থাৎ বেসিক পরিবর্তনটা শুধু ক্লিক করেই করা যায়। তবে একেবারে প্রফেশনাল ভাবে সাজাতে হলে অবশ্য সামান্য কোডিং করতেই হবে। এই কোডিং গুলো নিয়েই আমি টিউটোরিয়াল লিখবো।

সবার আগে Thesis এর ডেভেলপার ভার্শন এখান থেকে নামিয়ে নিন। কিভাবে ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগে নতুন থিম আপলোড করবেন এবং কনফিগার করবেন।

আগে মানে Thesis 1.8 এর আগে যে সব ভার্শন ছিল সবগুলোতে কোডিং করে হেডারে ছবি বা লোগো লাগাতে হত। তবে আমি যেটা দিলাম Thesis 1.8 এটা তে হেডারে ইমেজ লাগানোর জন্য আলাদা একটা মেনু দেয়া আছে। তবে আপনি যদি হেডার এর পাশে কোন এড অথবা অন্য কিছু লাগাতে চান তবে কোডিং ছাড়া ভালো হবে না। তাই আমি কোডিং এর পদ্ধতিতেই লিখি কি বলেন। আর যদি পাশে ব্যানার না লাগান তবে হেডার ইমেজ মেনু ব্যাবহার করেই লাগিয়ে ফেলুন।

Thesis থিম এ হেডারে লোগো লাগানো:

এটা কাস্টমাইজড করতে আপনাকে আপনার থিম এর একটু পরিবর্তন করতে হবে। তার জন্য যে কোন FTP সফটওয়্যার ব্যাবহার করে Public_html> Wp-content>Themes>thesis_18 যান এবং custom-sample নামের ফোল্ডারের নাম বদলিয়ে Custom করে দিন। { FTP সফটওয়্যার হিসেবে FileZilla FTP Client ব্যাবহার করতে পারেন}

১. আপনি FTP সফটওয়্যার ব্যাবহার করে Public_html/wp-content/themes/thesis 18/custom এ যান এবং আপনার সাইটের লোগো ইমেজটা আপলোড করুন।

২. এবার আপনার ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগে লগইন করুণ। তারপর থিসিস এর মেনুতে দেখুন নামের Custom File Editor একটা অপশন আছে সেখানে যান।

৩. তারপর নিচের কোড গুলো নিচে যোগ করে দিন।

/*logo change code paste it in custom.css file*/

.custom #header #logo a { display: block; height: 130px; width: 480px;

background: url(http://shiblyblog.co.cc/wp-content/themes/thesis_18/custom/images/Logo.png)no-repeat; outline: none; }

.custom #header #logo, .custom #header #tagline { text-indent: -9999px; }

.custom #header #tagline { height: 0; }

.custom #header {border:0.2em solid #9c9c9c;

height:120px;

padding:5px;

}

http://shiblyblog.co.cc/wp-content/themes/thesis_18/custom/images/Logo.png জায়গায় আপনার আপলোড কৃত ইমেজের লিংক দিন। Big Ass Save Button বাটনে ক্লিক করে আপনার থিম শেভ করুন। ব্যাস হয়ে গেছে আপনার কাজ।

হেডার এর পাশে এড লাগানো:

১. থিসিস মেনুর Custom File Editor একটা অপশন আছে সেখানে যান।

২. এবার custom_functions.php সিলেক্ট করে Edit Selected File বাটনে ক্লিক করুন।

৩. একই ভাবে নিচের কোড গুলো custom_functions.php ফাইলের নিচে লাগিয়ে দিন।

/* paste in custom_function.php */

function my_header_ad() {

?>

<div>

<a href=http://blogger-shibly.blogspot.com/“> <img src=”http://i838.photobucket.com/albums/zz310/srizonshil2shibly/BloggerShibly.gif” alt=”Noor Elahi Shibly “width=”300” height=”40“border=”0″/></a>

</div>

<?php

}

add_action(‘thesis_hook_header’, ‘my_header_ad’);

এখানে http://blogger-shibly.blogspot.com এর জায়গায় আপনার এড এর লিংক এবং http://i838.photobucket.com/albums/zz310/srizonshil2shibly/BloggerShibly.gif আপনার এড এর ইমেজ। আর Noor Elahi Shibly আপনার এড এর বর্ণনা।

আর যদি এডসেন্স এড বসাতে চান তাহলে <a href=http://blogger-shibly.blogspot.com/”> <img src=”http://i838.photobucket.com/albums/zz310/srizonshil2shibly/BloggerShibly.gif” alt=”Noor Elahi Shibly “width=”468” height=”60″border=”0″/></a> এই পুরো কোডটুকুর জায়গায় আপনার এডসেন্স কোন বসিয়ে দিন।

Big Ass Save Button বাটনে ক্লিক করে আপনার থিম শেভ করুন।

৪. আবার custom.css সিলেক্ট করুন এবং নিচের কোডটুকু যোগ করে দিন।

/* paste the code in custom.css */

.custom #header #header_ad {

float:right;

margin-top:-9em;

width:500px;

}

Big Ass Save Button বাটনে ক্লিক করে আপনার থিম শেভ করুন আর আপনার যদি এড বামে সরাতে চান তাহলে right কে left করে দিন।

ব্যাস আপনার কাজ শেষ।


বলে রখি আমি এখানে না ব্যাবহার করবো হেডার না ব্যাবহার করবো এড। আমার কাছে থিসিস এর হেডারের লেখা স্টাইলটা খুবই ভালো লাগে।

21 thoughts on “থিসিস থিম এর হেডার কাস্টমাইজড ১ (লোগো লাগানো ও পাশে ব্যানার স্থাপন)”

  1. অনেক উপকারী একটা পোষ্ট । থিসিস থিম নিয়ে আরও পোষ্ট চাই । খুব ভাল লাগছে চালিয়ে যান এবঙ ধারাবাহিকভাবে করতে পারেন । শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ।

  2. শিবলী, মানতে বাধ্য হলাম তুই একটা চিজ। খুবই ভালো ভাবে উপস্থাপন করার জন্য ধন্যবাদ।

  3. খু্বই ভালো হয়েছে , থিসিস নিয়ে আমিও লিখতে চেয়েছিলাম , সময়ের অভাবে পারছি না। থিসিস নিয়ে ঘাটাঘাটি করো আর যা জানবে আমাদের মাঝে শেয়ার করো

  4. জটিল লিখেছো। আসলে আমি ওয়ার্ডপ্রেসে অভ্যাস্ত নই। কিছুদিন আগেও ওয়ার্ডপ্রেসে ব্লগিং করার অনেক আগ্রহ ছিল, কিন্তু শেষ পর্যন্ত ওয়ার্ডপ্রেস ছাড়তে বাধ্য হলাম। কারন একটাই, মনের মত থীম খুজেই পাচ্ছিলাম না। অভিজ্ঞরা বলেন আগে লেখা শুরু কর তারপর থীম নিয়ে ভাব, কথাটি ২০০% ঠিক। কিন্তু আমাকে দিয়ে এই কাজ হচ্ছিল না। তাই ওয়ার্ডপ্রেসকে ওখানে বিদায়। আর থীসিস নিয়ে অনেক পড়েছি বিভিন্ন ব্লগে। যারা ওয়ার্ডপ্রেসে ব্লগিং করেন তারাই ভাল জানেন..এটা একটা ঝাক্কাস মাল !!!! 😛

    তোমার ব্লগটিও দেখলাম ভাল লাগলো আশা করি এখন থেকে আর বলবে না যে, তোমাকে দিয়ে আর ব্লগিং হবে না। তাইলে কিন্তু..খবর আছে 🙂 টিটি এবং টিবিডি-তে যা লিখছো এভাবেই তো তোমার ব্লগেও লিখতে পার। আশা করি বুঝতে পেরেছো। 🙂

    1. @শাওন, ওয়ার্ডপ্রেসের সাইট অনেক শ্লো হয় তাই আমিও ওয়ার্ডপ্রেস ছাড়তে চাইতেছি। একবার ভেবেছিলাম ডাটাবেজহীন সিএমএস ব্যবহার করি। ডাটাবেজহীন সাইটের সবচেয়ে বড় সুবিধা অনেক অনেক ফাষ্ট। তবে ওয়ার্ডপ্রেসের জন্য লক্ষ লক্ষ ফ্রি রিসোর্স আছে যা অন্য কোথাও পাওয়া যাবে না।

      থিসিস থিমটা বেশ ভাল, আমি থিসিস ব্যবহার করতে গিয়েও থেমে গেলাম। সবগুলো সাইট একই থিম-কেমন কেমন যেন লাগলো। শিবলী, শাওন, ইমরান সহ সকল পাঠককে ধন্যবাদ।

      1. @টিউটো, বলেন কি ভাই, আপনি ওয়ার্ডপ্রেস ছাড়বেন? তাহলে টিবিডি এর কি হবে। আমাদের এতো প্রিয় ব্লগকে কি হারায় ফেলবো নাকি? 🙁

        1. @শাওন, এই সাইটের জন্য ওয়ার্ডপ্রেসই আপাততঃ ঠিক আছে। অনেকে ব্যাক্তিগত ছোট ব্লগের জন্যও ওয়ার্ডপ্রেস ব্যবহার করে, আমি মনে করি সেটা না করাই উচিৎ। কম ফিচারের সাইটের জন্য এত ব্যাপকে যাওয়ার কি দরকার? কম ফিচারের এই সাইটটি দেখুন। আমার কাছে বেশ ভাল লাগে। http://zenhabits.net/

      2. @টিউটো, আমি মানি না। থিসিস একেবারে ভিন্ন করে দেয়া যায়।
        http://www.thesisthemetools.com সাইটা দেখুন তারপর thesisthemehq.com সাইটা দেখুন, একেবারে আকাশ- পাতাল পার্থক্য। আর থিসিস এর Skin গুলো আহ্ আর বলতে হবে না!

    2. @শাওন, শাওন ভাই আমার মত ছোট খাটো ব্লগার দের জন্য ব্লগার একটা সেরা প্লাটফরম। আমিও ওয়ার্ডপ্রেস এর চেয়ে ব্লগার বেশী ফেবার করি। কিছু নিয়েই চিন্তা করতে হয় না। কিন্তু মোটামুটি গ্রুপ ব্লগিং এর জন্য ওয়ার্ডপ্রেস এর কাছে আসতেই হবে।
      আর থিম এর ব্যাপারটা আসলে ওয়ার্ডপ্রেস এ ফ্রি থিম দিয়ে হয় না। আর থিসিস এর সুবিধা হলে SEO। তারপর কলাম কমানো বাড়ানো ফন্ট ছোট বড় এই সব থিসিস এ ক্লিক করেই করা যায়।

    3. @শাওন, শাওন ভাই, বলতে ভুলে গেছি আমি একা একা কিছু পারি না! আমার একজন বস থাকতে হয়। ঐ ব্লগ ব্লগটা মূলতও স্কিন সট নেবার জন্য তৈরি কর হয়েছে।

      1. @শিবলী, @শিবলী, গ্রুপ ব্লগিং এর জন্য ওয়ার্ডপ্রেসই সেরা এটা আমি ১০০% মানি। তবে, আমিতো গ্রুপ ব্লগিং করি না তাইনা? সুতরাং, ব্যক্তিগত ব্লগিং যতটুকুই পারছি তাতে অযাথা ডাটাবেস টেনে নিয়ে আসার দরকার পরেনা। আর গ্রুপ ব্লগিং এও ব্লগার অনেক ফাস্ট 🙂
        আমি শুধু শুধু তর্কে যাবো না। তুমি উপরে বলেছে”ছোট খাটো ব্লগার দের জন্য ব্লগার একটা সেরা প্লাটফরম“– তোমার এই ধরনাটা আংশিক ভুল আমি মনে করি। কারন বেশির ভাগ ব্লগাররা অত্যান্ত সিরিয়াসলি ব্লগিং করে। এক্ষেত্রে ওয়ার্ডপ্রেস কিংবা ব্লগার এ কোন সমস্যা না। উল্লেখ করার মত ব্লগার ব্লগ ব্লগস্পটটিউটোরিয়াল দেখতো পারো দিনে ১০-১৫ টা পোস্ট হয়। আমার ছোট্ট ব্লগিং ক্যারিয়ারটা ওখানে থেকে শিখেই শুরু আশা করি বুঝতে পারবে।

  5. হুম থিসিস খায় না মাথায় দেয় তা আজকে বুঝলাম!! ওয়ার্ডপ্রেস বেশি হাল্কা লাগে তবে ব্লগের জন্য মাস্ট।ওয়েব সাইট তৈরিতে জুমলার জুড়ি নাই তবে, ব্লগ বানালে ভাল লাগে না। আর প্রবলেম সলভের জন্য থাঙ্কুস…………

    1. @ইমরান, হা হা হা! আপনি কোথায় দিয়েছেন?
      ওয়ার্ডপ্রেস এর জন্য থিসিস এর কোন জুড়ি নাই। যেমন প্রফেশনাল আর তেমন হালকা। সবচেয়ে বড় কথা প্রচুর স্বাধীনতা পাওয়া যায়, নিজের ইচ্ছা মত সাজাতে। ওয়েব সাইট তৈরিও ওয়ার্ডপ্রেস এই আমি ব্যাবহার করি। তবে প্রফেশনালরা দেখি জুমলাতেই বানায়।
      আমার লেখা পড়ার জন্য ধন্যবাদ।

      1. @শিবলী,
        হুম নতুন করে ওয়ার্ড নিয়ে চিন্তা শুরু করলাম…আমার সবথেকে বড় সমস্যা সেটআপ-এ জুমলা বাচ্চাও সেটআপ করতে পারে…কিন্তু ওয়ার্ড প্রেস ওই কনফিগারেশন ফাইলের ওনেক কিছুই ভুল দেই।যেমনঃ আগে-পরে স্পেস থাকলেই কাম সারছে!!!(নতুনটার খবর জানিনা তাই যাচ্ছি দেখে আসি……….)অটো স্ক্রিপ ইন্সটলার দিয়ে কাজ চালাইছি..তাই আগ্যহ হারিয়ে ফেলেছি……….আবারও থাঙ্কুস………..

        1. @ইমরান, ইমরান ভাই, আপনাকে আমি ওয়ার্ডপ্রেস এর হাজার সুবিধা দেখালেও আমি আপনাকে বোঝাতে পারবো না, ওয়ার্ডপ্রেস সেরা।
          আবার আপনি জুমলার হাজার সুবিধা দেখালেও আমি মানবো না যে জুমলা সেরা। অতএব….!

          1. @শিবলী,
            “প্রথম দেখায় প্রেম” আপনি আমাকে কিছুতে জুমলা ছাড়াতে পারবে না, লাস্ট ইউজার হলেও আমিই হব ইনশাল্লাহ…..তবে সাধারন ব্লগে জুমলা কিছুটা কটু তবে ব্যাক্তিগত ব্লগে দারুন ফুটে উঠে…

          2. @শিবলী ও ইমরান , এখানে দেখি জুমলা ও ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে আলোচনা। ব্লগিং এর জন্য ওয়ার্ডপ্রেসটাকেই আমার ভাল লাগে। আর সাধারন ও বোঝার সুবিধা দুই দিক থেকেই ওয়ার্ডপ্রেস ব্লগিং বান্ধব। জুমলা দিয়ে বিভিন্নভাবে কনটেন্ট সাজানো যায় যেটা ওয়ার্ডপ্রেসের আগের ভার্শনগুলোতে করা যেতো না। ওয়ার্ডপ্রেস ৩.০ এ একটি ফিচার আছে যেটা এখন অনেকেই জানে না বা ব্যাবহার করে দেখে নি তা হলোঃ কাষ্টম পোষ্ট টাইপ। এটি দিয়ে একাধিক ওয়ার্ডপ্রেসের কাজটি একটা দিয়েই করা যাবে।

            বিশ্বের অনেক বড় বড় করপোরেট সাইট জুমলা ও দ্রুপাল দিয়ে বানানো। বিশ্বের অনেক বড় বড় ব্লগও ওয়ার্ডপ্রেস দিয়ে বানানো।
            কাষ্টমাইজেশন করতে পারলে অনেক বেশি সুবিধা আনা যায় দুইটিতেই। ধন্যবাদ সবাইকে।

Comments are closed.