ওয়েবপি ছবি ফরমেট কি? ওয়েব ডিজাইনারদের অবস্থান কি হতে পারে?

ওয়েবে ছবি সংরক্ষনের জন্য নতুন ধরনের একটি ছবি কম্প্রেশন উদ্ভাবন করেছে গুগল। এটি একটি লসি টেকনোলজি, তুলনার দিক থেকে জেপিজির কাছাকাছি বলা যেতে পারে। ওয়েবপি এই ফরমেটটির ব্যাপক জনপ্রিয়তা আশা করছে গুগল। গুগল দেখিয়েছে যে এই ফরমেটটি সমমানের জেপিজি ফাইলের চেয়ে ৪০% জায়গা দখল করবে। জেপিজি ফরমেটের সাথে তুলনামূলক ছবিতে বিষয়টি আরও পরিষ্কার হবে।

web-p

ওয়েবপি ফরমেটটি ব্যবহার করা কি প্রয়োজনীয়?

আমি মনে করি ওয়েব ডিজাইনারদের জন্য ওয়েবপি ফরমেটটি ব্যবহারে এগিয়ে আসা উচিৎ। যেই সময় জেপিজি সহ অন্যান্য ফরমেট বাজারে আসে সেই সময় কম্প্রেশনের জন্য শুধু ওয়েবসাইট-ই নয় বিভিন্ন মাধ্যমের চিন্তা করেই ফরমেটটি বানানো হয়েছে। এই ফরমেটটি যদি সমপরিমান মান রক্ষা করে ছবি আরও বেশি কম্প্রেশন করতে পারে তাহলে এই ফরমেটে যেতে দোষ কি? বেশ কিছু সুবিধার জন্য এই ফরমেটটি ওয়েবসাইটে ব্যবহার করা যেতে পারে,

১. ব্যান্ডউইথ কম খরচ হবে, তাই সারভারের উপর চাপ কমবে, সেই সাথে খরচও কমবে।

২. ওয়েবসাইট দ্রুত লোড হবে এবং তাই সাই ব্রাউজ করা সহজ হবে। ইউজাবিলিটির জন্য এটা বেশ ভাল।

৩. সার্চ ইঞ্জিন যেহেতু খুব দ্রুত লোড হওয়া সাইট সহজে ইনডেক্স করে তাই সার্চ ইঞ্জিন অপটিমাইজেশনের জন্যও ভাল হবে। তাছাড়া গুগলের নিজস্ব ছবি ফরমেট হওয়ায় এটির দিকে সুনজর থাকতেই পারে।

৪. ইদানিং মোবাইল ইউজার অনেক বেশি এবং দিন দিন বেড়েই চলছে। ওয়েবপি ফরমেটের ছবি তাদের ব্যান্ডউইথ বাচাতেও সহায়তা করবে।

এখনই কি ব্যবহার করা যাবে?

ওয়েবপি ফরমেটটি মাত্র রিলিজ হলো এবং এখনো ডেভলপমেন্টের পর্যায়ে আছে। আর তাই এই মূহুর্তে এটি ছবি ইডিটিং সফটওয়্যার, ক্যামেরা,স্ক্যানার , মোবাইলসহ অন্যান্য প্রযুক্তি পন্য এমনকি জনপ্রিয় ব্রাউজারগুলোও সাপোর্ট করে না। গুগল ছবি সার্চের সুবিধার জন্য এবং অনলাইনের ছবি বিশাল ছবি ভান্ডারকে খুব দ্রুত গতিতে ও কম খরচে সবার কাছে পৌছে দিতে এই ফরমেটটি নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।

জেপিজি ও ওয়েবপিঃ

অনেকে মনে করে ওয়েবপি বাজারে এলে জেপিজি* ফরমেটিকে কেউ ব্যবহার করবে না। আমার ধারনা জেপিজি ফরমেট থাকবেই। জেপিজিতে ইচ্ছামতো কম্প্রেশনের সুবিধাই এত দূর এগিয়ে দিয়েছে। তবে সব ধরনের ডিভাইজ, সফটওয়্যার ও ব্রাউজার সাপোর্ট দিয়ে গেলে এটি ওয়েব জগতে প্রতিষ্ঠিত হতে পারবে বলে অনেকে ধারনা করেন। আরেকটা বেপারও জরিত আছে, তথ্য প্রযুক্তিতে গুগলের প্রতিযোগী প্রতিষ্ঠানও কম নয় তারা এই নতুন ফরমেটটিকে কতটা পজিটিভাবে গ্রহণ করবে সেটাও দেখার বেপার।

আরও জানতে পারেন

5 thoughts on “ওয়েবপি ছবি ফরমেট কি? ওয়েব ডিজাইনারদের অবস্থান কি হতে পারে?”

  1. হ্যা মোটামুটি ভালই মনে হচ্ছে। আশা করি শীঘ্রই গুগোলের এই ফরমেটকে সকলেই স্বাগত জানাবে। ভালো পোস্ট মাহবুব ভাই। ধন্যবাদ এই বিষয়ে জানানোড় জন্য।

    1. @ডিজে আরিফ, আপনাকেও ধন্যভাদ আরিফ ভাই। এটা এসে গেলে হয়তো ওয়েবে আরও কিছু পরিবর্তন আসতে পারে। ছবি সার্চ ফলাফলও খুব দ্রুত দেখা যাবে। হোষ্টিং এর টাকাও অনেক বাচঁবে। দেখা যাক মাইক্রোসফট এই ফরমেট প্রদর্শনের ব্যবস্থা রাখে কিনা তাদের পরবর্তি অপারেটিং সিস্টেমে।

  2. ছবির ফরমেট নিয়ে মনে হয় ব্যাপক চিন্তা হচ্ছে? আচ্ছা আপনাকে একটা প্রশ্ন আপনি সবচেয়ে কোন ফরমেট বেশী ব্যাবহার করেন?

    1. @শিবলী, প্রয়োজন অনুসারে অনেকগুলো ফরমেটই ভাল। আমার যেহেতু ওয়েবে বেশি কাজ করতে হয় তাই জেপিজি আর পিএনজি বেশি ব্যবহার করা হয়। ছবি ইডিট করে প্রিন্টের জন্য পাঠাতে চাইলে TIFF ফরমেটে সেভ করে মজা পাই।

Comments are closed.