ফ্রিল্যান্সারদের অফিসিয়াল ও প্রশাসনিক বিষয়ে অভিজ্ঞতা থাকা চাই

বড় কোন কর্ম পরিবেশে কাজ করলে বেশ কিছু নিয়ম নীতি আর কর্ম পরিবেশের সাথে সম্পর্ক হয়। কাজের ধারা ও নিয়ম নীতি সম্পর্কে বেশ কিছু বিষয় জানা যায়। যারা পড়ালেখা শেষ করে বড় প্রতিষ্ঠানে কাজ না করে প্রথমেই ঘরে বসে অনলাইনে আয়ের জন্য ফ্রিল্যান্সিং এর মনোযোগ দিচ্ছেন তাদের তথ্য প্রযুক্তির জ্ঞানের সাথে সাথে কর্ম পরিবেশ ও ভবিষ্যতের পরিকল্পনা ও বড় কোন সিদ্ধান্ত নিতে অবশ্যই এডমিনিস্ট্রেটিভ বেশ কিছু বিষয়ে জেনে নেওয়া ভাল।

office-2

১. অফিসিয়াল ব্যবস্থাপনা

নতুন ফ্রিল্যান্সার যারা প্রথম থেকেই বাসা থেকে কাজের শুরু করেছেন এবং বড় কোন পরিবেশে কাজ করে আসেন নি তাদের ক্ষেত্রে অফিস ব্যবস্থাপনার অদক্ষতা থাকতেই পারে। একজন লোক সব কিছুতে ভাল হতে পারে না। তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ে আপনার ভাল জ্ঞান থাকলেও অফিসের নিয়ম ও বিবিধ বিষয়ে একটি নিয়ম তৈরী করে নিতে পারেন। যেমন কখন থেকে কখন কাজ করবেন। ছুটি ও অন্যান্য বিষয়।

২. ব্যবসা সম্পর্কে জানা

ব্যবসা পরিচালনার বেপারে দক্ষতার অর্জনের জন্য অন্যে কিভাবে কাজ করে এবং সমস্যায় পড়লে কি কি করে সেটা জেনে নিতে পারেন। পরিচিত কোন ব্যক্তিকে আদর্শ হিসেবে ধরে তার কাছ থেকে তার ব্যবসায়ীক পদ্ধতি জেনে নিতে পারেন।

৩. এডমিন ও প্রশাসনিক ব্যবস্থাপনা শিখা

আপনার সাথে আরও কয়েকজন কাজ করলে তাদের পরিচালনার জন্যও প্রশাসনিক বিষয় জানতে হবে। বেতনভূক্ত কোন লোক নিয়োগ করলে তার সাথে কি ধরনের অফিসিয়াল ডকুমেন্ট মেইনটেইন করতে হবে সে সম্পর্কেও জেনে নিতে পারেন। আপনাকে তাদের সাথে প্রফেশনাল আচরন বজায় রাখতে হবে। বেশ কিছু সুবিধার বেপারে আগেই জানিয়ে দিতে হয় যেমন-অফিস সময়, ছুটি ইত্যাদি। আবার বেশ কিছু লজিস্টিক সাপোর্টও দিতে হয় যেমন- কাজের পরিবেশ, যাতায়াত ভাড়া, মোবাইল খরচ ইত্যাদি। অনেক সময় বেশ কিছু অপশনাল সুবিধা- যেমন- লাঞ্চ, টিফিন ইত্যাদির ব্যবস্থাপনা করতে হতে পারে। আর তাই বিষয়গুলোর সাথে পরিচিত না হলে প্রশাসনিক ব্যবস্থাপনা দুর্বল হয়ে পড়বে এবং কাজ করাতে সমস্যা সৃষ্টি হবে।

৪. অন্যের অফিস ভ্রমন

এ জন্য অন্যের অফিস ভ্রমন করে দেখতে পারেন। আজ কাল অফিসগুলো অনেক বেশি উন্নত এবং সুযোগ সুবিধায় ভরা। কয়েকটা অফিসে ভ্রমন করলে অফিস সেটআপের বেপারে একটা ধারনা চলে আসবে। নিজের বাসায় বসে কাজ করলেও কাজের পরিবেশটিকে আলাদা করে নিতে হবে- একেবারে অফিসিয়াল নিয়মে নিয়ে আসতে পারলে ভাল। অনেক ক্লাইন্টই প্রফেশনালিজমের বেপারটাকে গুরুত্ব দেয়।

নিজে একই সাথে কয়েকটি প্রতিষ্ঠানে চাকরী এবং বাসায় বসে কিছু কাজ করার অভিজ্ঞতার আলোকে এই কথাগুলো বললাম। এর চেয়ে অনেক বেশি কিছু করতে হতে পারে, তবে প্রাথমিকদের জন্য এই বিষয়গুলো গুরুত্বপূর্ণ। সবাই ভাল থাকুন, সাথে থাকুন।

3 thoughts on “ফ্রিল্যান্সারদের অফিসিয়াল ও প্রশাসনিক বিষয়ে অভিজ্ঞতা থাকা চাই”

Comments are closed.