পেলিকান

পেলিকান(Pelecanus) একপ্রকার পাখি যাদের আকার সাধারণ পাখির তুলনায় বেশি। এদের অনেকগুলো প্রজাতি রয়েছে তাদের রঙও বিভিন্ন ধরনের হয় যেমন-সাদা,বাদামী।এদের সকল প্রজাতির মুখগহ্বরে একটি বড়থলি রয়েছে যার জন্য এই প্রজাতির পাখি বেশ পরিচিত।

তারা তাদের স্থিতিস্থাপক এই থলি মাছ ধরার কাজে ব্যবহার করে যদিও বিভিন্ন প্রজাতি বিভিন্ন কাজে এটি ব্যবহার করে থাকে। অনেক পেলিকান একসাথে সহযোগিতার ভিত্তিতে মাছ ধরে থাকে। তারা অগভীর পানিতে “ইউ” আকৃতি অথবা সমান্তরাল আকার গঠন করে। যখন মাছ অগভীর পানিতে আসে তখন পেলিকানরা তাদেরকে পাখার সাহায্যে আঘাত করে এবং তাদের ঠোটে তোলে নেয়।


পেলিকানরা তাদের মুখগহ্বরে মাছ সংরক্ষণ করেনা, কিন্তু  মাছ ধরার জন্য এটি সহজভাবে ব্যবহার করে। অথচ এই পাখির মুখগহ্বরে এমন পরিমাণ জায়গা রয়েছে যেখানে তারা চাইলেই কমপক্ষে ১১.৫ লিটার পানি অথবা ৩০ পাউন্ড মাছ মজুত রাখতে পারে! এদের শরীর ৫.৮ ফুট লম্বা,পাখার দৈর্ঘ্য ১০ ফুট এবং ওজনে ১৩  কেজি হয়। সমুদ্রতীরবর্তী এলাকা এবং হ্রদ ও নদীতে এদেরকে দেখতে পাওয়া যায়। তারা সামাজিক পাখি, সচরাচর ঝাঁক বেঁধে বেড়ায় এবং দলবদ্ধ হয়ে বংশবিস্তার করার জন্য কোন দ্বীপে একসাথে জড়ো হয়। বাচ্চা পেলিকানরা  তাদের বাবা-মার তত্ত্বাবদানে বড় হয়। বাবা-মা বাচ্চা পেলিকানদেরকে ঠোটে করে খাবার তুলে এনে খাওয়ায় ।
উত্তর আমেরিকায় বাদামী পেলিকানরা ঝুঁকির মধ্যে রয়েছে। রাসায়নিক কীটনাশক যেমন DDT, যা পেলিকান  এবং অনেক অন্যান্য প্রজাতির সমুদ্রের পাখির ডিমকে ক্ষতিগ্রস্ত করছে ফলে তাদের বংশ বিধ্বস্ত হচ্ছে।
তাদের আয়ুস্কাল সচরাচর ১০ থেকে ২৫ বছর বা তার বেশি হয়।