দ্য পাইরেট ব্যে এর কিছু বিকল্প টরেন্ট সাইট

যেকোনো রকমের টরেন্ট ডাউনলোডের জন্যে বেশির ভাগ মানুষই ধরণা দেয় দ্য পাইরেট ব্যে তে। টরেন্ট এর জন্যে এর থেকে দারুণ সাইট খুব কমই আছে। প্রথমত প্রচুর ব্যবহারকারী হওয়ায় প্রায় সকল টরেন্টেই ভালো সিডার থাকে পাশাপাশি টরেন্ট বিশ্বাসযোগ্য কিনা তা দেখে নিতে বিভিন্ন ডাউনলোডারের কমেন্টগুলো পড়ে নিশ্চিত হয়ে নেয়া যায়। সবদিক বিবেচনা করে টরেন্ট এর জন্যে দ্য পাইরেট ব্যে একটি অনন্য সাধারণ ওয়েবসাইট। এই পোস্টটিতে দ্য পাইরেট ব্যে এর কিছু বিকল্প সাইট এর পরিচয় দেয়া হবে।

দ্য পাইরেট ব্যে

আইএসওহান্টঃ

আইএসওহান্ট জানুয়ারি ২০০৩ এ গ্যারি ফাং কর্তৃক চালু করা হয়। ক্যানাডিয়ান এই সাইটটির ভিজিটর সংখ্যা এবং টরেন্টের সঙ্খ্যা অপ্রতুল। দ্য পাইরেট ব্যে এর অন্যতম সেরা বিকল্প হতে পারে এটি।

ওয়ান থ্রি থ্রি ৭ এক্সঃ

এটিও বেশ পপুলার একটি টরেন্ট সাইট, যদিও বয়সের দিক থেকে বেশ তরুণ সাইটটি, তবুও ইতোমধ্যেই বেশ নাম কামিয়েছে এর সার্ভিস এর সুবাদে। দ্য পাইরেট ব্যে এর অলটারনেট হতে পারে এটি।

টরেন্টযঃ

এটি কোন টরেন্ট হোস্ট না, এটি টরেন্ট সার্চ ইঞ্জিন। এই সার্চ ইঞ্জিনের ক্রওলার বিভিন্ন টরেন্ট সাইটে গিয়ে সেগুলো ইন্ডেক্স করে এবং ব্যবহারকারী যখন কোন বিষয়ে এই সার্চ ইঞ্জিনে সার্চ করে তখন উক্ত নামের ফাইল কোন কোন টরেন্ট সাইটে আছে তা দেখিয়ে দেয় এবং ব্যবহারকারী পছন্দমত সাইটে গিয়ে সেটা ডাউনলোড করে নিতে পারে।

কিকঅ্যাস টরেন্টঃ

২০০৯ এ অবমুক্ত হওয়া এই টরেন্ট সাইটটি বেশ তরুণ হলেও ইতোমধ্যেই দুনিয়া কাঁপিয়ে বেড়াচ্ছে। কয়েক মাস আগে kickasstorrents.com থেকে kat.ph ডোমেইনে তারা নিজেদের স্থানান্তর করেছে।।

বিটিজাঙ্কিঃ

এটিও বেশ নামকরা প্রসিদ্ধ একটি টরেন্ট সাইট,  গত কয়েকমাস আগে ইতালির কোর্টের একটি রায়ে ইতালিতে বন্ধ হয়ে গিয়েছিলো বিটিজাঙ্কি, তখন এর মালিক ইতালির ব্যবহারকারীদের সর্বোচ্চ সুবিধা দিতে একটি এড-ফ্রি মিরর সাইট খুলেন। এটিও পাইরেট ব্যে এর অলটারনেট হওয়ার দাবীদার।

বিটস্নুপঃ

এটি সদ্য অবমুক্ত হওয়া টরেন্ট সাইট, কিন্তু অল্প কয়েকদিনেই এটি স্বনামধন্য হয়ে গিয়েছে। এই বছরেই বিপুল পরিমাণে ব্যবহারকারি বেড়েছে এই সাইটটির। পাইরেট ব্যের সাথে একেও তুলনা করা যেতে পারে।