এইচ টি এম এল ৫ এর নতুন সুযোগ সুবিধা সমূহ – এইচ টি এম এল ৫ (পর্ব-২)

মনে করা হচ্ছে যে এইচ টি এম এল ৫ ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভলপমেন্ট এর ক্ষেত্রে নতুন দিগন্ত সৃষ্টি করবে।এ লক্ষেই এইচ টি এম এল ৫ অসংখ্য নতুন ফিচার নিয়ে আমাদের সামনে হাজির হয়েছে। ইতোমধ্যেই বিশ্বের ডেভলপারদের অনেকেই এইচ টি এম এল ৫ এর উপর কাজ শুরু করেছেন, এর এর পূর্ণ সুবিধা উপভোগের চেষ্টা করছেন। আপনিও যদি তাদের একজন হতে চান তাহলে আজই শুর করে দিন এইচ টি এম এল ৫ শেখা এবং গবেষণা। প্রথমিক পদক্ষেপ হিসেবে আসুন জেনে নেয়া যাক কি কি নতুন ফিচার থাকছে এইচ টি এম এল  এর নতুন এবং বর্ধিত সংস্করণ এইচটি এম এল ৫ এ।

এইচ টি এম এল ৫ এর নতুন সুযোগ সুবিধা সমূহ

  • নতুন সিমেন্টিক উপাদান: <header>, <footer>,<audio>,<canvas>,<nav>,<video>,<section> ইত্যাদি সহ আরো অনেক নতুন ট্যাগ যুক্ত করা হয়েছে।যা আমাদেরকে ওয়েব টেমপ্লেটের গঠন এবং আধুনিক ফিচার যুক্ত করতে সাহায্য করবে।
  • ফরম: ওয়েব ফরর্মের কার্যকারিতা আরো বৃদ্ধি করার জন্য <input> ট্যাগের বেশ কিছু নতুন এট্রিবিউটস্ যুক্ত করা হয়েছে।
  • অডিও-ভিডিও: এইচ টি এম এল ৫ এর মাধ্যমে কোন থার্ড পার্টি এপ্লিকেশন ব্যবহার ছাড়াই ওয়েবে ভিডিও এবং অডিও যুক্ত করা যাবে।
  • ওয়েব সকেট:  পরবর্তী প্রজন্মের ওয়েব এপ্লিকেশন এর জন্য এটা একটা বাইডিরেকশনাল কমিউনিকেশন টেকনোলজি।
  • ক্যানভাস: টু ডাইমেনশনাল বা দ্বি মাত্রিক ড্রয়িং তৈরির জন্য এটা একটা নতুন এবং আকর্ষণীয় ফিচার।
  • সার্ভার সেন্ট ইভেন্টস: এইচ টি এম এল ৫ আমাদেরকে পরিচয় করিয়ে দেয় নতুন কিছু ইভেন্টস এর সাথে যেগুলোর কার্যক্রম ওয়েব সার্ভার থেকে ওয়েব ব্রাউজারের দিকে প্রবাহিত হয় এবং এগুলোকে বলা হয় সার্ভার সেন্ট ইভেন্টস (Server-Sent Events) ।
  • জিওলোকেশন: ভিজিটররা ওয়েব এপ্লিকেশন এর মাধ্যমে তাদের অবস্থান শেয়ার করতে পারবে।
  • ড্রাগ এন্ড ড্রপ: কোন ওয়েব পেজের বিভিন্ন উপাদানকে এক যায়গা থেকে ড্রাগ এন্ড ড্রপের মাধ্যমে ঐ পেজেরই অন্য স্থানে স্থাপন করা যাবে।

এইচ টি এম এল ৫ শেখার জন্য করণীয়:

এইচটি এম এল ৫ যেহেতু এইচ টি এম এল  এর নতুন এবং বর্ধিত সংস্করণ সুতরাং এটার শেখার জন্য আপনাকে অবশ্যই এইচটি এম এল ৪.১ ভালোভাবে আয়ত্তে থাকতে হবে,পাশাপাশি সি এস এস এবং জাভাস্ক্রিপ্টের ধারণা আপনাকে সাহায্য করবে। আর অবশ্যই মজিলা, অপেরা, অ্যাপল এর সাফারি, গুগল ক্রোম এর সর্বশেষ ভার্সন সমূহের মধ্যে থেকে অন্তত যে কোন একটি ব্রাউজার ব্যবহার করতে হবে, একাধিক ব্রাউজার ব্যবহার করলে অন্যান্য ব্রাওজার সম্পর্কও ধারণা তৈরি হবে এবং ব্রাউজার কমপাটিবিলিটি সম্পর্কে ভাল ধারণা তৈরি হবে।

………………………………………………………………………………..

জ্ঞন বিজ্ঞানের সংস্পর্শে আলোকিত একটা সুন্দর সমৃদ্ধ পৃথিবীর প্রত্যাশায় আজ এখানেই শেষ করছি। সকলের জন্য শুভকামনা রইল।