জাভাস্ক্রিপ্ট কেন ব্যবহার করবেন ? – জাভাস্ক্রিপ্ট (পর্ব-২)

ওয়েব ডিজাইন এবং ডেভলপমেন্ট উভয় ক্ষেত্রেই জাভাস্ক্রিপ্ট সমান গুরুত্বপূর্ণ।আপনি তখনই একজন পরিপূর্ণ ডিজাইনার হয়ে উঠবেন যখন এইচ টি এম এল এবং সি এস এস এর পাশাপাশি জাভাস্ক্রিপ্ট ব্যবহার করতে পারবেন। এটা আপনাকে সৃজনশীলতা প্রকাশের সুযোগ সৃষ্টি করে দেবে। ই কমার্স সাইট গুলোতে বিভিন্ন ধরণের পণ্য সিলেক্ট করে এবং তাদের পরিমান নির্ধারণ করে ব্যবহারকারী তার অর্ডারের প্রয়োজনীয় হিসাব দেখতে পারে এধরণের সুবিধা আপনাকে যুক্ত করতে হলে অবশ্যই জাভাস্ক্রিপ্ট এর সুবিধা নিতে হবে। অন্যদিকে বিভিন্ন ধরণের ইন্ট্রাকটিভ ইফেক্ট তৈরিতেও জাভাস্ক্রিপ্ট এর জুড়ি নেই।

জাভাস্ক্রিপ্ট কেন ব্যবহার করবেন ?

  • জাভাস্ক্রিপ্ট এইচ টি এম এল ডিজাইনারকে প্রোগ্রামিং এর সুযোগ তৈরি করে দেয়: প্রকৃতপক্ষে যারা এইচ টি এম এল এ কোড লেখেন তার প্রোগ্রামার নন। জাভাস্ক্রিপ্ট একটা স্ক্রিপ্টিং ল্যাঙ্গুয়েজ এবং এটা এইচ টি এম এল এর সাথে সরাসরি ইমবেড করা যায়, তাই জাভাস্ক্রিপ্ট প্রোগ্রামিং এর সুযোগ সৃষ্টি করে।
  • জাভাস্ক্রিপ্ট ওয়েব পেজে ডাইনামিক টেক্সট যুক্ত করার সুযোগ সৃষ্টি করে: document.write(“<h3>” + text + “</h3>”) স্টেটমেন্ট টি ডাইনামিক টেক্সট যুক্ত করার জন্য লেখা হয়েছে। এখানে text নামে একটা ভেরিয়েবল দ্বারা ইউজার বা ব্রাউজারের কাছ থেকে ডাটা নিয়ে তা প্রদর্শনের ব্যবস্থা করা হয়েছে।
  • জাভাস্ক্রিপ্ট অবস্থা এবং সময় বিবেচনা করে কার্য সম্পাদন করতে পারে: কোন একটা পেজ সম্পূর্ণ লোড হওয়ার সাথে সাথে ইউজারকে একটা ম্যাসেজ প্রদশর্ন করা, কোন ইলিমেন্টে মাউস ক্লিক করলে এলার্ট প্রদর্শন করা, তারিখ এবং সময় অনুযায়ী ভিজিটরদের অভিবাদন করা ইত্যাদি জাভাস্ক্রিপ্ট এর মাধ্যমে করা যায়।
  • ব্যবহারকারীর পছন্দ অনুযায়ী ডিজাইন নির্বাচন করার সুযোগ দেয়: জাভাস্ক্রিপ্টের মাধ্যমে একজন ব্যবহারকারী তার ইচ্ছা অনুযায়ী কোন একটি পেজের জন্য একাধিক স্ট্যাইল সিটের মধ্যে থেকে একটি নির্বাচন করার সুযোগ পায় অর্থাৎ ব্যবহারকারী নিজের পছন্দ অনুযায়ী ডিজাইন নির্বাচন করাতে পারে।
  • জাভাস্ক্রিপ্ট এর মাধ্যমে  এইচ টি এম এল এ তৈরিকৃত ফরম ভ্যালিডেশন করা হয়: এইচ টি এম এল এর মাধ্যমে তৈরিকৃত কোন ফরমের বিভিন্ন ফিল্ডে একজন ব্যবহারকারী কি ধরণের ডাটা প্রদান করতে পারবেন, প্রতিটি ডাটার আকৃতি এবং গঠন কেমন হবে তা জাভাস্ক্রিপ্ট এর মাধ্যমে নির্ধারণ করা হয়, আর একেই বলা হয় ফরম ভ্যালিডেশন।
  •  জাভাস্ক্রিপ্ট এর মাধ্যমে  ব্যবহারকারীর ব্রাউজার নির্দেশ করে: ব্যবহারকারী কোন ব্রাউজার ব্যবহার করছে, তার উপর ভিত্তি করে কোন পেজটি লোড হবে বা পেজের জন্য কোন স্ট্যাইল সিটটি ব্যবহারিত হবে তা জাভাস্ক্রিপ্টের মাধ্যমে যুক্ত করা যায়।
  • ইন্ট্রাকটিভ ইফেক্ট তৈরি: ফটো গ্যালারি, ইমেজ স্লাইডার, নেভিগেশন বার, এবং বিভিন্ন ব্যানারে টেক্সট ইফেক্ট সহ বিভিন্ন ধরণের ইন্ট্রাকটিভ ইফেক্ট তৈরিতে জাভাস্ক্রিপ্ট ব্যবহার করা হয়।

………………………………………………………………………………..

জ্ঞন বিজ্ঞানের সংস্পর্শে আলোকিত একটা সুন্দর সমৃদ্ধ পৃথিবীর প্রত্যাশায় আজ এখানেই শেষ করছি। সকলের জন্য শুভকামনা রইল।

4 thoughts on “জাভাস্ক্রিপ্ট কেন ব্যবহার করবেন ? – জাভাস্ক্রিপ্ট (পর্ব-২)”

    1. ভাইজান একটু কষ্ট করে মন্তব্য বাংলায় দিলে ভাল হয়। আপনার জন্য শুভ কামনা রইল। শিক্ষা বিস্তারে আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

    1. ভাইজান, একটু কষ্ট করে মন্তব্য বাংলায় দিলে ভাল হয়। আপনার জন্য শুভ কামনা রইল। শিক্ষা বিস্তারে আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

Comments are closed.