মুভিতে এসে গেছে নতুন প্রযুক্তি! 4D মুভিতে পাবেন ঘ্রাণ

4D মুভি খুব শিঘ্রই নর্থ আমেরিকাতে রিলিজ হচ্ছে, নতুন প্রায় ১০০০ সেন্সর যুক্ত হচ্ছে আপনার মুভি দেখার অভিজ্ঞতায় আর সাথে থাকছে ঘ্রাণ প্রযুক্তি।

সাউথ কোরিয়ার CJ গ্রুপ হলো এর এই 4D মুভির প্রস্তুতকারক, 4DX  সিস্টেম আপনাকে 3D মুভির সাথে যোগ করবে বাস্তব স্বাধ। ধরুন আপনি সাগরের ঢেউ আছড়ে পড়ছে এমন দৃশ্য মুভিতে দেখছেন ঠিক তখনি পাইপ থেকে পানির ছটকা এসে লাগবে আপনার গায়ে। স্ট্রিট রেসের মুভি দেখছেন? তাহলে ঐ পাইপ থেকে বের হবে রাবার পোড়ার স্মেল।

আর মুভি থিয়েটারের সিটগুলো হলো নমনীয়, ফলে যখন মুভিতে গাড়ি ক্র্যাশ করবে তখনি আপনি তা আপনার সিট থেকেই অনুভব করতে পারবেন। এছাড়া লাইট  ইফেক্টও যুক্ত আছে।

4D মুভি হয়তো খুব শিঘ্রই দেখা যাবে তা আগামি মাসেও হতে পারে তবে 4D মুভির আসল অভিজ্ঞতা পেতে হলে তা মুভির উপরও নির্ভর করবে।

CJ গ্রুপ আশা করছে নর্থ আমেরিকাতে আগামি চার বছরের মধ্যে 4DX টেকনলজি সমৃদ্ধ ২০০ থিয়েটার তৈরি করবে।

আর 4D মুভির জন্য আপনাকে গনতে হবে এক্সট্রা ৮ ডলার। কি মনে হয় আপনার? এই প্রযুক্তি কি আসলেই পারবে সিনেমাপ্রেমীদের মন ভরাতে? বাংলাদেশে কি আসবে এই প্রযুক্তি? জানান মন্তব্য ঘরে।

দেখে নিন এই ভিডিও

 

 

8 thoughts on “মুভিতে এসে গেছে নতুন প্রযুক্তি! 4D মুভিতে পাবেন ঘ্রাণ”

  1. ওয়াশিকুর বাবু

    অনেক আগেই শুনেছিলাম ঘ্রান প্রযুক্তির ব্যাপারে। তবে জীবদ্দশায় প্রস্তুত হবে এমনটা ভাবতে পারিনি। কিন্তু একটা প্রশ্ন, ধরুন টয়লেট সিন দেখাচ্ছে তখন কি গন্ধ আসবে?

    1. হাসান যোবায়ের

      হা হা
      সেটা সময়েই বলে দিবে 😛 😛

  2. বড়দা আমি তো জানতাম এই “D” দিয়ে Dimension অর্থাৎ মাত্রা বোঝানো হয়। যেমন দৈর্ঘ্য, প্রস্থ, উচ্চতা আর সময় [ স্ট্রিং থিওরি মতে আরও নি ছয়টা সংকুচিত হয়ে আছে!]। তাই এই সুবিধা দিয়ে 4D নাম করণ একটু ইয়ে ইয়ে লাগছে।

    1. হাসান যোবায়ের

      না শুধু ঘ্রাণের জন্য 4D নামকরন করা হয়নি। এটা শুধু আরেকটা আলাদা ফিচার। আর এখনো এটার কাজ প্রক্রিয়াতে আছে। সব শেষে কি হয় তা সময়ই বলে দিবে। 🙂

    1. হাসান যোবায়ের

      তাইতো! আমিতো খেয়ালই করি নাই। 😛
      ধন্যবাদ অসীম ভাই। 🙂

Comments are closed.