ব্যাকলিঙ্ক

ব্যাকলিঙ্ক

সবাইকে আবারো সালাম ও শুভেচ্ছা জানিয়ে শুরু করছি আমার আজকের এসইও টিউটোরিয়াল । আমরা গত পর্বগুলোতে অনপেইজ এসইও এর অংশগুলো নিয়ে আলোচনা করেছিলাম । আজ থেকে আমরা শুরু করবো অফপেইজ এসইও । ব্যাকলিঙ্ক তৈরি করা অফপেইজ এসইও এর একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ অংশ । ব্যাকলিঙ্ক প্রক্রিয়াটি হচ্ছে, আপনি কোন একটি সাইটে ভিজিট করলেন এবং সেখানে মন্তব্য আকারে নিজের সাইটটি দিয়ে দিলেন । এতে আপনার একটি ব্যাকলিঙ্ক তৈরি হল । তখন সেই সাইটের অন্য কোন ভিজিটর আপনার সাইটের সন্ধান পাবে । এছাড়া, ওয়েব পেইজ গুগল এর প্রথম পেইজ এ আনতে এবং সাইটের পেইজর‌্যাঙ্ক বাড়াতে ব্যাকলিঙ্ক বিশেষভাবে সহায়ক । আপনার ওয়েবসাইটের ভিজিটর এর উপর ভিত্তি করে গুগল আপনাকে একটি নম্বর দিবে সেটি-ই হচ্ছে সাইটের পেইজর‌্যাঙ্ক । আপনার সাইটটি ১০ নম্বর থেকে কত নম্বরে অবস্থান করছে তা ঠিক করে দিবে । এক্ষেত্রে, যদি কোন সাইটের পেইজর‌্যাঙ্ক ৭ হয় তাহলে বলা যাবে যে সেই সাইটের ভিজিটর, ব্যাকলিঙ্ক এবং কন্টেন্ট এর উপর ভিত্তি করে গুগল সাইটটিকে ৭ নম্বর দিয়েছে । যদি কোন সাইটের পেইজর‌্যাঙ্ক ৫-১০ এর মধ্যে হয় তাহলে সেই সাইটে কমেন্ট করার সিস্টেম থাকলে কমেন্ট করুন । মন্তব্য করার ক্ষেত্রে প্রাসঙ্গিকতা বজায় রাখুন এবং এমন কোন মন্তব্য করবেন না যেন তা স্প্যাম হিসেবে বিবেচিত হয় । এক্ষেত্রে,

  • বিভিন্ন আর্টিকেল এ একই মন্তব্য করবেন না ।
  • মন্তব্য করার সময় একটিমাত্র শব্দ (যেমন; 'Good, Nice, Fine') পরিহার করুন ।
  • আপ্রাসঙ্গিক মন্তব্য করবেন না ।
  • মন্তব্য করার সময় লেখককে উৎসাহ দেওয়ার চেষ্টা করুন ।
বুঝতে সমস্যা হলে কমেন্ট জানাতে ভুলবেন না, আজ এই পর্যন্ত । -ধন্যবাদ সবাইকে, ভাল থাকুন ।



লেখকঃ জিহাদুর রহমান

পেশা হিসেবে একজন ছাত্র । প্রযুক্তিকে নিয়েই দিনের বেশিরভাগ সময় ব্যয় করি । আমাকে ফেইসবুক এ পেতে পারেন।

মতামত

কপি রাইট টিউটোহোস্ট ২০১০-২০১২